ঢাকা ১০:৪৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কচুয়ায় কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি : কচুয়ায় বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও আওয়ামীলীগ নেতা লিটন চৌধুরীর মানহানী ও তাকে হুমকির ঘটনায় পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাসুদ আলমের বিরুদ্ধে কচুয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

Model Hospital

উপজেলার কড়ইয়া ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামের বাসিন্দা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী লিটন চৌধুরী ২৩ আগস্ট কচুয়া থানায় দায়ের করা অভিযোগে উল্লেখ করেন, তার ভাগিনা জয়নাল গংদের সম্পত্তি সংক্রান্ত বিষয়ে একই বাড়ির শাহজালাল গংদের বিরোধ চলে আসছে। কাউন্সিলর মাসুদ আলম শাহজালালের পক্ষ নিয়ে দলসহ বিভিন্ন সময় আমার ভাগিনাদের উপর চাপ প্রয়োগ, ভয় ভীতি, হুমকি ধমকি প্রদর্শন করে আসছে। আমরা নোয়াগাঁও গ্রামবাসী এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিদের নিয়ে আমাদের সমস্যা সমাধানের লক্ষে কাজ করছি। মাসুদ আলমকে এ কথা বলার পর সে আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে হুমকি ধমকি প্রদান করে।

এ ঘটনার জের ধরে মাসুদ আলম ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দিয়ে ২২ আগস্ট কচুয়া পৌরসভার পল্টন ময়দানে মানব বন্ধন করে। মানববন্ধন শেষে মাসুদ আলম ও তার ভাড়াটিয়া লোকজন সমাবেশ থেকে ঘোষনা প্রদান করেন, আমি কচুয়ায় গেলে আমার প্রাইভেটকার ভাংচুর ,আমার লাইসেন্স করা পিস্তল ছিনতাই করবে। তাছাড়া সমাবেশ থেকে অমার সম্পর্কে অশ্লীল ভাষায় গাল মন্দ করিয়া ফেইসবুকে ছড়িয়ে দেয়। যার ফলে আমার মানহানী হয়েছে। আমি প্রশাসনের নিকট এ ঘটনার বিচার দাবী করছি।

এ ঘটনায় কাউন্সিলর মাসুদ আলম, নোয়াগাঁও গ্রামের শাহজালালকে এজহার নামীয় ও অজ্ঞাত ৪/৫জনকে বিবাদী করে কচুয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। যার নং ১১২৪, তারিখ- ২৩ আগস্ট।

এ ব্যাপারে কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মহিউদ্দিন বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীতা ঘোষণা শ্যামলী খানের

কচুয়ায় কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৪:৩৮:৩৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ অগাস্ট ২০২২

নিজস্ব প্রতিনিধি : কচুয়ায় বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও আওয়ামীলীগ নেতা লিটন চৌধুরীর মানহানী ও তাকে হুমকির ঘটনায় পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাসুদ আলমের বিরুদ্ধে কচুয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

Model Hospital

উপজেলার কড়ইয়া ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামের বাসিন্দা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী লিটন চৌধুরী ২৩ আগস্ট কচুয়া থানায় দায়ের করা অভিযোগে উল্লেখ করেন, তার ভাগিনা জয়নাল গংদের সম্পত্তি সংক্রান্ত বিষয়ে একই বাড়ির শাহজালাল গংদের বিরোধ চলে আসছে। কাউন্সিলর মাসুদ আলম শাহজালালের পক্ষ নিয়ে দলসহ বিভিন্ন সময় আমার ভাগিনাদের উপর চাপ প্রয়োগ, ভয় ভীতি, হুমকি ধমকি প্রদর্শন করে আসছে। আমরা নোয়াগাঁও গ্রামবাসী এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিদের নিয়ে আমাদের সমস্যা সমাধানের লক্ষে কাজ করছি। মাসুদ আলমকে এ কথা বলার পর সে আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে হুমকি ধমকি প্রদান করে।

এ ঘটনার জের ধরে মাসুদ আলম ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দিয়ে ২২ আগস্ট কচুয়া পৌরসভার পল্টন ময়দানে মানব বন্ধন করে। মানববন্ধন শেষে মাসুদ আলম ও তার ভাড়াটিয়া লোকজন সমাবেশ থেকে ঘোষনা প্রদান করেন, আমি কচুয়ায় গেলে আমার প্রাইভেটকার ভাংচুর ,আমার লাইসেন্স করা পিস্তল ছিনতাই করবে। তাছাড়া সমাবেশ থেকে অমার সম্পর্কে অশ্লীল ভাষায় গাল মন্দ করিয়া ফেইসবুকে ছড়িয়ে দেয়। যার ফলে আমার মানহানী হয়েছে। আমি প্রশাসনের নিকট এ ঘটনার বিচার দাবী করছি।

এ ঘটনায় কাউন্সিলর মাসুদ আলম, নোয়াগাঁও গ্রামের শাহজালালকে এজহার নামীয় ও অজ্ঞাত ৪/৫জনকে বিবাদী করে কচুয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। যার নং ১১২৪, তারিখ- ২৩ আগস্ট।

এ ব্যাপারে কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মহিউদ্দিন বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।