ঢাকা ০২:০১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

প্রিয় বাংলা পাণ্ডুলিপি পুরস্কার গ্রহণ করলেন মিজানুর রহমান রানা

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র ঢাকা থেকে ২৩ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রি. শুক্রবার প্রিয় বাংলা প্রকাশনীর আয়োজিত প্রিয় বাংলা পাণ্ডুলিপি পুরস্কার গ্রহণ করলেন মিজানুর রহমান রানা।

Model Hospital

মুক্তিযুদ্ধের উপন্যাস ‘রক্তে রঞ্জিত ধূসর পদচিহ্ন’র জন্যে তিনি এ পুরস্কার ও সম্মাননা অর্জন করেন।

এ সময় মিজানুর রহমান রানা সহ মোট দশজনকে পুরস্কার ও সম্মানা প্রদান করা হয়।

পাণ্ডুলিপি পুরস্কার ও সন্মাননা অনুষ্ঠানে প্রিয় বাংলা প্রকাশনীর প্রকাশক এসএম জসিম ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট নাট্যভিনেতা ও লেখক আবুল হায়াত।

অনুষ্ঠানের উদ্বোধক ছিলেন শিশু সাহিত্যিক কবি আসলাম সানি। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কবি ও সম্পাদক সুজন বড়ুয়া, রম্যলেখক আহসান কবির, শিশু সাহিত্যিক মালেক মাহমুদ।

নান্দনিক উপস্থাপনায় ছিলেন রাশেদ রেহমান ও জেসমিন প্রিয়াংকা।

উল্লেখ, ২০ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার প্রিয় বাংলা প্রকাশনের পক্ষ থেকে বিজয়ী দশ লেখকের নাম ঘোষণা করা হয়। ঘোষণা অনুযায়ী বিজয়ী দশজন লেখক হচ্ছেন- হাসান রাউফুন, নাহিদ ফেরদৌসী, আবুল কালাম আজাদ, ড. আবদুল আলীম তালুকদার, সত্যজিৎ বিশ্বাস, আহমাদ স্বাধীন, মিজানুর রহমান রানা, রেজওয়ান ইসলাম, আজহার মাহমুদ এবং জাহাঙ্গির শাহরিয়ার।

আটটি বিষয়ে মোট দশজন লেখককে মনোনীত করেছে প্রিয় বাংলা। মনোনীত পাণ্ডুলিপিগুলো আগামী বইমেলায় বই আকারে প্রকাশ পাবে প্রিয় বাংলা প্রকাশন থেকে। লেখকরা পাবেন আনুষ্ঠানিক সম্মাননা এবং বিক্রয়োত্তর রয়্যালিটি।

‘প্রিয় চয়েস’ প্রিয় বাংলা প্রকাশনের নতুন একটি প্ল্যাটফর্ম। এই প্যাকেজের মাধ্যমে সারাদেশের লেখকদের কাছ থেকে থেকে পাণ্ডুলিপি আহ্বান করা হয়েছিল। ডিসেম্বরের ১০ তারিখ পর্যন্ত ছিল পাণ্ডুলিপি জমা দেওয়ার শেষ সময়। জমাকৃত পাণ্ডুলিপিগুলো থেকে বাছাইকৃত দশটি পাণ্ডুলিপি বই আকারে প্রকাশের ঘোষণা ছিল প্রিয় বাংলার। সেই ঘোষণা অনুয়ায়ী আজ বাছাইকৃত দশ পাণ্ডুলিপির নাম প্রকাশ করা হয়েছে। এগুলো হচ্ছে- হাসান রাউফুন-এর চর্যাপদের সহজপাঠ (গবেষণা), নাহিদ ফেরদৌসীর প্রবীন সমীকরণ (প্রবন্ধ), আবুল কালাম আজাদ-এর ঘুমই সফলতার চাবিকাঠি (রম্য), ড. আবদুল আলীম তালুকদার-এর হিমালয়কন্যার আঁচল আঙিনায় (ভ্রমণ), সত্যজিৎ বিশ্বাস-এর বৃহস্পতি যখন তুঙ্গে (রম্য), আহমাদ স্বাধীন-এর বিজ্ঞানের ইতিহাস ও রহস্য (বিজ্ঞান), মিজানুর রহমান রানা-র রক্তে রঞ্জিত ধূসর পদচিহ্ন (উপন্যাস), রেজওয়ান ইসলাম-এর ভিনদেশি গল্প (অনুবাদ), আজহার মাহমুদ-এর স্বদেশ ভ্রমণের ইতিকথা (ভ্রমণ) এবং জাহাঙ্গির শাহরিয়ার-এর চোখের জলে আগুন জ্বলে (গল্প)।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

রমজানের আগেই ‘দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ কমিশন’ দাবি নতুনধারার

প্রিয় বাংলা পাণ্ডুলিপি পুরস্কার গ্রহণ করলেন মিজানুর রহমান রানা

আপডেট সময় : ০৪:২১:৩১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র ঢাকা থেকে ২৩ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রি. শুক্রবার প্রিয় বাংলা প্রকাশনীর আয়োজিত প্রিয় বাংলা পাণ্ডুলিপি পুরস্কার গ্রহণ করলেন মিজানুর রহমান রানা।

Model Hospital

মুক্তিযুদ্ধের উপন্যাস ‘রক্তে রঞ্জিত ধূসর পদচিহ্ন’র জন্যে তিনি এ পুরস্কার ও সম্মাননা অর্জন করেন।

এ সময় মিজানুর রহমান রানা সহ মোট দশজনকে পুরস্কার ও সম্মানা প্রদান করা হয়।

পাণ্ডুলিপি পুরস্কার ও সন্মাননা অনুষ্ঠানে প্রিয় বাংলা প্রকাশনীর প্রকাশক এসএম জসিম ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট নাট্যভিনেতা ও লেখক আবুল হায়াত।

অনুষ্ঠানের উদ্বোধক ছিলেন শিশু সাহিত্যিক কবি আসলাম সানি। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কবি ও সম্পাদক সুজন বড়ুয়া, রম্যলেখক আহসান কবির, শিশু সাহিত্যিক মালেক মাহমুদ।

নান্দনিক উপস্থাপনায় ছিলেন রাশেদ রেহমান ও জেসমিন প্রিয়াংকা।

উল্লেখ, ২০ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার প্রিয় বাংলা প্রকাশনের পক্ষ থেকে বিজয়ী দশ লেখকের নাম ঘোষণা করা হয়। ঘোষণা অনুযায়ী বিজয়ী দশজন লেখক হচ্ছেন- হাসান রাউফুন, নাহিদ ফেরদৌসী, আবুল কালাম আজাদ, ড. আবদুল আলীম তালুকদার, সত্যজিৎ বিশ্বাস, আহমাদ স্বাধীন, মিজানুর রহমান রানা, রেজওয়ান ইসলাম, আজহার মাহমুদ এবং জাহাঙ্গির শাহরিয়ার।

আটটি বিষয়ে মোট দশজন লেখককে মনোনীত করেছে প্রিয় বাংলা। মনোনীত পাণ্ডুলিপিগুলো আগামী বইমেলায় বই আকারে প্রকাশ পাবে প্রিয় বাংলা প্রকাশন থেকে। লেখকরা পাবেন আনুষ্ঠানিক সম্মাননা এবং বিক্রয়োত্তর রয়্যালিটি।

‘প্রিয় চয়েস’ প্রিয় বাংলা প্রকাশনের নতুন একটি প্ল্যাটফর্ম। এই প্যাকেজের মাধ্যমে সারাদেশের লেখকদের কাছ থেকে থেকে পাণ্ডুলিপি আহ্বান করা হয়েছিল। ডিসেম্বরের ১০ তারিখ পর্যন্ত ছিল পাণ্ডুলিপি জমা দেওয়ার শেষ সময়। জমাকৃত পাণ্ডুলিপিগুলো থেকে বাছাইকৃত দশটি পাণ্ডুলিপি বই আকারে প্রকাশের ঘোষণা ছিল প্রিয় বাংলার। সেই ঘোষণা অনুয়ায়ী আজ বাছাইকৃত দশ পাণ্ডুলিপির নাম প্রকাশ করা হয়েছে। এগুলো হচ্ছে- হাসান রাউফুন-এর চর্যাপদের সহজপাঠ (গবেষণা), নাহিদ ফেরদৌসীর প্রবীন সমীকরণ (প্রবন্ধ), আবুল কালাম আজাদ-এর ঘুমই সফলতার চাবিকাঠি (রম্য), ড. আবদুল আলীম তালুকদার-এর হিমালয়কন্যার আঁচল আঙিনায় (ভ্রমণ), সত্যজিৎ বিশ্বাস-এর বৃহস্পতি যখন তুঙ্গে (রম্য), আহমাদ স্বাধীন-এর বিজ্ঞানের ইতিহাস ও রহস্য (বিজ্ঞান), মিজানুর রহমান রানা-র রক্তে রঞ্জিত ধূসর পদচিহ্ন (উপন্যাস), রেজওয়ান ইসলাম-এর ভিনদেশি গল্প (অনুবাদ), আজহার মাহমুদ-এর স্বদেশ ভ্রমণের ইতিকথা (ভ্রমণ) এবং জাহাঙ্গির শাহরিয়ার-এর চোখের জলে আগুন জ্বলে (গল্প)।