ঢাকা ০২:১২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হাফেজিয়া মাদ্রাসার ছাত্রদের মাঝে পাগড়ী প্রদান

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের বড় শাহতলী গ্রামের মাজার সংলগ্ন মরহুম খন্দকার সামছুল হক এতিম খানা ও হাফেজিয়া মাদ্রাসার ছাত্রদের মাঝে পাগড়ী প্রদান করা হয়েছে।

Model Hospital

১৮ মার্চ সকাল ৬টায় হযরত শাহ মাহমুদ বাগদাদী (রহ) বাৎসরিক ওরশ মাহফিল শেষে মাদ্রাসায় প্রথম হাফেজ হওয়া ছাত্রদের মাঝে পাগড়ী প্রদান ও পুরস্কার প্রদান করা হয়।

মরহুম খন্দকার সামছুল হক এমিত খানা ও হাজেফিজায় মাদ্রাসা প্রথম হাফেজ হাওয়া ছাত্ররা হচ্ছেন মোঃ সাব্বির খন্দকার, মোঃ রিয়াদ হোসেন, মোঃ মোজাম্মেল বেপারী।

এ তিন কৃতি শিক্ষার্থীদেরকে পাগড়ী প্রদান করেন শাহতলী কামিল মাদ্রাসার সহকারী অধ্যাপক মাওলানা মোঃ কামাল হোসাইন, ডেমরা ফুলমতি কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব মাওলানা বদিউজ্জামান বাহার, মোহাম্মদপুর কৃষি মার্কেট তাহেরিয়া জামে মসজিদের খতিব মুফতি খন্দকার সাইফুল ইসলাম বাগদাদী।

মাদরাসার পরিচালক মোঃ বাকের খন্দকার, খন্দকার এনামুল হক বাবলু, খন্দকার রবিউল হক টিটু, খন্দকান শাহিদুল আলম মাহফুজ, খন্দকার মুকবুল আহমেদ, মরহুম খন্দকার সামছুল হক এতিম খানা ও হাফেজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক হাফেজ আব্দুর রাজ্জাক উপস্থিতিতে থেকে হাফেজদের মাঝে পাগড়ী প্রদান করেন।

হাফেজরা সর্বশ্রেষ্ঠ বাণী কোরআনের ধারক। চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহ মাহমুদপুর ইউনিয়নে প্রাণকেন্দ্রে এই শিক্ষা প্রতিতষ্ঠানটি জ্ঞানের আলো ছড়াচ্ছেন। উত্তরোত্তর এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে এ প্রত্যাশা প্রতিষ্ঠা পরিচালকরা প্রত্যাশা ব্যাক্ত করেছে। মাদরাসার পরিবেশ ও শিক্ষার গুণগত মান দেখে অভিভাবকরা যাতে আনন্দিত হয়, সেলক্ষ্য নিয়েই তারা এগুচ্ছে। শিক্ষকসহ এ প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সাথে যারা জড়িত তাঁদের সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন অতিথিবৃন্দ।

উল্লেখ্য হযরত শাহ মাহমুদপুর বাগদাদি (রহ) এর বাৎসরিক ওরম ও মাহফিল সুষ্ঠ ভাবে সম্পূর্ণ হয়েছে। মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন ওয়াজ করেন শাহতলী কামিল মাদ্রাসার সহকারী অধ্যাপক মাওলানা মোঃ কামাল হোসাইন। মাহফিলে প্রধান বক্তরা হিসেবে ওয়াজ করেন, আর্ন্তজাতিক খ্যাতি সম্পন্ন বক্তা, ঢাকা ডেমরা ফুলমতি কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব মাওলানা বদিউজ্জামান বাহার, বিভিন্ন টেলিভিশনের আলোচ্যক ঢাকা মোহাম্মদপুর কৃষি মার্কেট তাহেরিয়া জামে মসজিদের খতিব মুফতি খন্দকার সাইফুল ইসলাম বাগদাদী, আলহাজ¦ মাওলানা মোহাম্মদ আলী আল-কাদেরী, ভড়ঙ্গারচর ছালেহীয়া দ্বীনিয়া মাদ্রাসার মুদিও মাওলানা মোঃ মাইনুদ্দিন, খন্দকার বাড়ি জামে মসজিদের ঈমাম হাফের আব্দুর রাজ্জাক, মাওলানা মোঃ জুবায়ের আনসারী।

আগাগী বছর ২১ ফ্রেব্রুয়ারী মাজারের বাৎসরিক ওরশ মাহফিলের তারিখ নির্ধারন করেন মাহফিল কর্তৃপক্ষ।
পাগড়ী প্রদান অনুষ্ঠানে মাদ্রসার ছাত্রদের মাঝে পুরস্কুর তুলে দেন, বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও ব্যবসায়ী মোঃ জহিরুল হক লালু মাষ্টার।

ট্যাগস :

মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচিতদের গেজেট প্রকাশ

হাফেজিয়া মাদ্রাসার ছাত্রদের মাঝে পাগড়ী প্রদান

আপডেট সময় : ০৩:৪০:৫৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মার্চ ২০২৩

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের বড় শাহতলী গ্রামের মাজার সংলগ্ন মরহুম খন্দকার সামছুল হক এতিম খানা ও হাফেজিয়া মাদ্রাসার ছাত্রদের মাঝে পাগড়ী প্রদান করা হয়েছে।

Model Hospital

১৮ মার্চ সকাল ৬টায় হযরত শাহ মাহমুদ বাগদাদী (রহ) বাৎসরিক ওরশ মাহফিল শেষে মাদ্রাসায় প্রথম হাফেজ হওয়া ছাত্রদের মাঝে পাগড়ী প্রদান ও পুরস্কার প্রদান করা হয়।

মরহুম খন্দকার সামছুল হক এমিত খানা ও হাজেফিজায় মাদ্রাসা প্রথম হাফেজ হাওয়া ছাত্ররা হচ্ছেন মোঃ সাব্বির খন্দকার, মোঃ রিয়াদ হোসেন, মোঃ মোজাম্মেল বেপারী।

এ তিন কৃতি শিক্ষার্থীদেরকে পাগড়ী প্রদান করেন শাহতলী কামিল মাদ্রাসার সহকারী অধ্যাপক মাওলানা মোঃ কামাল হোসাইন, ডেমরা ফুলমতি কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব মাওলানা বদিউজ্জামান বাহার, মোহাম্মদপুর কৃষি মার্কেট তাহেরিয়া জামে মসজিদের খতিব মুফতি খন্দকার সাইফুল ইসলাম বাগদাদী।

মাদরাসার পরিচালক মোঃ বাকের খন্দকার, খন্দকার এনামুল হক বাবলু, খন্দকার রবিউল হক টিটু, খন্দকান শাহিদুল আলম মাহফুজ, খন্দকার মুকবুল আহমেদ, মরহুম খন্দকার সামছুল হক এতিম খানা ও হাফেজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক হাফেজ আব্দুর রাজ্জাক উপস্থিতিতে থেকে হাফেজদের মাঝে পাগড়ী প্রদান করেন।

হাফেজরা সর্বশ্রেষ্ঠ বাণী কোরআনের ধারক। চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহ মাহমুদপুর ইউনিয়নে প্রাণকেন্দ্রে এই শিক্ষা প্রতিতষ্ঠানটি জ্ঞানের আলো ছড়াচ্ছেন। উত্তরোত্তর এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে এ প্রত্যাশা প্রতিষ্ঠা পরিচালকরা প্রত্যাশা ব্যাক্ত করেছে। মাদরাসার পরিবেশ ও শিক্ষার গুণগত মান দেখে অভিভাবকরা যাতে আনন্দিত হয়, সেলক্ষ্য নিয়েই তারা এগুচ্ছে। শিক্ষকসহ এ প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সাথে যারা জড়িত তাঁদের সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন অতিথিবৃন্দ।

উল্লেখ্য হযরত শাহ মাহমুদপুর বাগদাদি (রহ) এর বাৎসরিক ওরম ও মাহফিল সুষ্ঠ ভাবে সম্পূর্ণ হয়েছে। মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন ওয়াজ করেন শাহতলী কামিল মাদ্রাসার সহকারী অধ্যাপক মাওলানা মোঃ কামাল হোসাইন। মাহফিলে প্রধান বক্তরা হিসেবে ওয়াজ করেন, আর্ন্তজাতিক খ্যাতি সম্পন্ন বক্তা, ঢাকা ডেমরা ফুলমতি কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব মাওলানা বদিউজ্জামান বাহার, বিভিন্ন টেলিভিশনের আলোচ্যক ঢাকা মোহাম্মদপুর কৃষি মার্কেট তাহেরিয়া জামে মসজিদের খতিব মুফতি খন্দকার সাইফুল ইসলাম বাগদাদী, আলহাজ¦ মাওলানা মোহাম্মদ আলী আল-কাদেরী, ভড়ঙ্গারচর ছালেহীয়া দ্বীনিয়া মাদ্রাসার মুদিও মাওলানা মোঃ মাইনুদ্দিন, খন্দকার বাড়ি জামে মসজিদের ঈমাম হাফের আব্দুর রাজ্জাক, মাওলানা মোঃ জুবায়ের আনসারী।

আগাগী বছর ২১ ফ্রেব্রুয়ারী মাজারের বাৎসরিক ওরশ মাহফিলের তারিখ নির্ধারন করেন মাহফিল কর্তৃপক্ষ।
পাগড়ী প্রদান অনুষ্ঠানে মাদ্রসার ছাত্রদের মাঝে পুরস্কুর তুলে দেন, বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও ব্যবসায়ী মোঃ জহিরুল হক লালু মাষ্টার।