ঢাকা ০১:২৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কচুয়ায় ছেলের স্ত্রী কতৃক শ্বাশুড়ীকে হত্যা চেষ্টা, থানায় অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলায় ছেলের বউ কতৃক ৬০ বছরের বৃদ্ধা শ্বাশুড়ি যশোদা রানী শীল কে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Model Hospital

চিকিৎসাধীন আহতের সূত্রে জানা যায়, কচুয়া উপজেলার নাউলা গ্রামের শীল বাড়ির মৃত নকুল চন্দ্র শীলের একমাত্র প্রবাসী ছেলে প্রানকৃষ্ণের সাথে কুমিল্লার চান্দিনা এলাকার নারায়ণ চন্দ্রের মেয়ে স্মৃতি রানী শীলের সাথে ২০১১ সালে পারিবারিক ভাবে বিবাহ হয়।

বিয়ের পূর্ব থেকে প্রান কৃষ্ণ প্রবাসে চাকুরী করেন। তিনি প্রবাসীতে যে কোম্পানীতে চাকুরী করেন ঐ কোম্পানীর নিয়ম অনুযায়ী প্রতি ৬ মাস পর পর ছুটিতে দেশে আসেন।

অপরদিকে এই দম্পতির দীর্ঘ ১যুগের ও বেশি দাম্পত্য জীবনের সংসারে ১ছেলে ও ১ মেয়ে রয়েছে। কিন্তু প্রান কৃষ্ণের স্ত্রী স্বামীর অনুপস্থিতির ফাঁকে একাধিক যুবকের সাথে পরাকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়েন এবং এই পরাকীয়ার ঘটনা জানাজানি হয়। শুধু তাই নয়, প্রান কৃষ্ণের দেওয়া স্বর্নলংকার এবং ঘর থেকে বহু দামী বা মূল্যবান মালামাল চুরি করে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ রয়েছে ।

এছাড়াও বেশ কয়েকবার পরাকীয়ার সম্পর্ক কে নিয়ে দেনদরবার হয়ে এক পর্যায়ে স্মৃতি রানী শীলের বিরুদ্ধে চাঁদপুর কোর্টে পর পর দুটি মামলা চলমান রয়েছে।

কিন্তু হঠাৎ করেই স্মৃতি রানী শীল গতকাল ২৫ ডিসেম্বর শনিবার সকলের অজান্তে কচুয়ায় প্রান কৃষ্ণের বাড়িতে এসে তাঁর বৃদ্ধ মাতা যশোদা রানী শীল (৬০) কে হত্যার উদ্দেশ্যে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মাথায় আঘাত করলে ডাক চিৎকারে পাশ্ববর্তী ঘরের লোকজন দৌড়ে এসে উদ্ধার করে প্রথমে কচুয়া সরকারি হাসপাতালে পরবর্তীতে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। বর্তমানে যশোদা রানী শীল চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

জানাযায়, উল্লেখিত ঘটনার বিষয়ে কচুয়া থানাকে অবহিত করা হয় এবং এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

শাহরাস্তির কৃতি সন্তান মাসুদ আলম যশোরের নতুন এসপি 

কচুয়ায় ছেলের স্ত্রী কতৃক শ্বাশুড়ীকে হত্যা চেষ্টা, থানায় অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৩:৪১:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০২১

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলায় ছেলের বউ কতৃক ৬০ বছরের বৃদ্ধা শ্বাশুড়ি যশোদা রানী শীল কে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Model Hospital

চিকিৎসাধীন আহতের সূত্রে জানা যায়, কচুয়া উপজেলার নাউলা গ্রামের শীল বাড়ির মৃত নকুল চন্দ্র শীলের একমাত্র প্রবাসী ছেলে প্রানকৃষ্ণের সাথে কুমিল্লার চান্দিনা এলাকার নারায়ণ চন্দ্রের মেয়ে স্মৃতি রানী শীলের সাথে ২০১১ সালে পারিবারিক ভাবে বিবাহ হয়।

বিয়ের পূর্ব থেকে প্রান কৃষ্ণ প্রবাসে চাকুরী করেন। তিনি প্রবাসীতে যে কোম্পানীতে চাকুরী করেন ঐ কোম্পানীর নিয়ম অনুযায়ী প্রতি ৬ মাস পর পর ছুটিতে দেশে আসেন।

অপরদিকে এই দম্পতির দীর্ঘ ১যুগের ও বেশি দাম্পত্য জীবনের সংসারে ১ছেলে ও ১ মেয়ে রয়েছে। কিন্তু প্রান কৃষ্ণের স্ত্রী স্বামীর অনুপস্থিতির ফাঁকে একাধিক যুবকের সাথে পরাকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়েন এবং এই পরাকীয়ার ঘটনা জানাজানি হয়। শুধু তাই নয়, প্রান কৃষ্ণের দেওয়া স্বর্নলংকার এবং ঘর থেকে বহু দামী বা মূল্যবান মালামাল চুরি করে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ রয়েছে ।

এছাড়াও বেশ কয়েকবার পরাকীয়ার সম্পর্ক কে নিয়ে দেনদরবার হয়ে এক পর্যায়ে স্মৃতি রানী শীলের বিরুদ্ধে চাঁদপুর কোর্টে পর পর দুটি মামলা চলমান রয়েছে।

কিন্তু হঠাৎ করেই স্মৃতি রানী শীল গতকাল ২৫ ডিসেম্বর শনিবার সকলের অজান্তে কচুয়ায় প্রান কৃষ্ণের বাড়িতে এসে তাঁর বৃদ্ধ মাতা যশোদা রানী শীল (৬০) কে হত্যার উদ্দেশ্যে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মাথায় আঘাত করলে ডাক চিৎকারে পাশ্ববর্তী ঘরের লোকজন দৌড়ে এসে উদ্ধার করে প্রথমে কচুয়া সরকারি হাসপাতালে পরবর্তীতে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। বর্তমানে যশোদা রানী শীল চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

জানাযায়, উল্লেখিত ঘটনার বিষয়ে কচুয়া থানাকে অবহিত করা হয় এবং এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।