ঢাকা ০৪:৫৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হাজীগঞ্জ-কচুয়া-গৌরিপুর সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ৫

মো. রাছেল : চাঁদপুরের কচুয়ায় হাজীগঞ্জ-কচুয়া-গৌরিপুর সড়কের কড়ইয়া নামক স্থানে সিএনজি ও কাভার ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক সহ আহত ৫জন। শুক্রবার সন্ধ্যায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

Model Hospital

আহতরা হচ্ছেন- উপজেলার বিতারা ইউনিয়নের মাঝিগাছা গ্রামের মোস্তাফা কামাল (৫২),বিল্লাল হোসেন (৪২), সুফিয়ান (২১), সামাদ (৪২), দেলোয়ার হোসেন (৭২)। গুরুতর আহত সুফিয়ান, সামাদ, দেলোয়ারকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। সিএনজি চালক বিল্লাল ও যাত্রী মোস্তাফা কামাল কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আহতদের সূত্রে জানা যায়, আহত পাচঁজনই মাঝিগাছা গ্রামের বাসিন্দা। তাদের পাঁচজনেই ব্যক্তিগত কাজেই পাশ^বর্তী হাজীগঞ্জ উপজেলায় যায়। কাজ শেষে সিএনজি যোগে বাড়ি ফেরার পথে উপজেলার কড়ইয়া নামক স্থানে কাভার ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুর্ঘটনাটি ঘটে। দুর্ঘটনায় সিএনজিটি যাত্রীসহ পাশ^বর্তী খালে পড়ে যায়।

উপজেলা নিবাহী কর্মকর্তা মোতাছেম বিল্লাহ বলেন- সড়ক ও জনপদের সাথে যোগাযোগ করে দুর্ঘটনা প্রতিরোধে ম্পিড ব্রেকার, ধিরে চলুন এ ধরনের কোন সংকেত চিহ্ন ব্যবহার ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এবং সিএনজি ড্রাইভারদের সহিত দুর্ঘটনার প্রতিরোধে সর্তকী করন বৈঠক করা হবে।

কচুয়া থানার অফিসার ইনর্চাজ মো. মহিউদ্দিন জানান, দুর্ঘটনার খবর শুনে ঘটনার স্থলে আমরা দ্রুত পৌছাই। ঘাতক কভার ভ্যানটি আটকের চেষ্টা চালাচ্ছি। সিএনজিটি উদ্ধার করে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, চার মাস পূর্বে একই স্থানে বিআরটিসি ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে তিন কলেজ শিক্ষার্থীর প্রাণ ঝড়ে। চাঞ্চালকর এ ঘটনার পরেও সড়ক ও জনপদ বিভাগ এ দুর্ঘটনার স্থানটিতে ম্পিড ব্রেকার, ধিরে চলুন এ ধরনের কোন সংকেত চিহ্ন ব্যবহার করেননি।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

কি হবে আর ছবি তুলে!

হাজীগঞ্জ-কচুয়া-গৌরিপুর সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ৫

আপডেট সময় : ০২:০৪:৩৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২২

মো. রাছেল : চাঁদপুরের কচুয়ায় হাজীগঞ্জ-কচুয়া-গৌরিপুর সড়কের কড়ইয়া নামক স্থানে সিএনজি ও কাভার ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক সহ আহত ৫জন। শুক্রবার সন্ধ্যায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

Model Hospital

আহতরা হচ্ছেন- উপজেলার বিতারা ইউনিয়নের মাঝিগাছা গ্রামের মোস্তাফা কামাল (৫২),বিল্লাল হোসেন (৪২), সুফিয়ান (২১), সামাদ (৪২), দেলোয়ার হোসেন (৭২)। গুরুতর আহত সুফিয়ান, সামাদ, দেলোয়ারকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। সিএনজি চালক বিল্লাল ও যাত্রী মোস্তাফা কামাল কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আহতদের সূত্রে জানা যায়, আহত পাচঁজনই মাঝিগাছা গ্রামের বাসিন্দা। তাদের পাঁচজনেই ব্যক্তিগত কাজেই পাশ^বর্তী হাজীগঞ্জ উপজেলায় যায়। কাজ শেষে সিএনজি যোগে বাড়ি ফেরার পথে উপজেলার কড়ইয়া নামক স্থানে কাভার ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুর্ঘটনাটি ঘটে। দুর্ঘটনায় সিএনজিটি যাত্রীসহ পাশ^বর্তী খালে পড়ে যায়।

উপজেলা নিবাহী কর্মকর্তা মোতাছেম বিল্লাহ বলেন- সড়ক ও জনপদের সাথে যোগাযোগ করে দুর্ঘটনা প্রতিরোধে ম্পিড ব্রেকার, ধিরে চলুন এ ধরনের কোন সংকেত চিহ্ন ব্যবহার ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এবং সিএনজি ড্রাইভারদের সহিত দুর্ঘটনার প্রতিরোধে সর্তকী করন বৈঠক করা হবে।

কচুয়া থানার অফিসার ইনর্চাজ মো. মহিউদ্দিন জানান, দুর্ঘটনার খবর শুনে ঘটনার স্থলে আমরা দ্রুত পৌছাই। ঘাতক কভার ভ্যানটি আটকের চেষ্টা চালাচ্ছি। সিএনজিটি উদ্ধার করে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, চার মাস পূর্বে একই স্থানে বিআরটিসি ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে তিন কলেজ শিক্ষার্থীর প্রাণ ঝড়ে। চাঞ্চালকর এ ঘটনার পরেও সড়ক ও জনপদ বিভাগ এ দুর্ঘটনার স্থানটিতে ম্পিড ব্রেকার, ধিরে চলুন এ ধরনের কোন সংকেত চিহ্ন ব্যবহার করেননি।