ঢাকা ০২:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারমুক্ত হলেন কচুয়া সদর দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের লিটন মুন্সি

মেহেদী হাসান : ভারমুক্ত হলেন কচুয়া সদর দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. লিটন মুন্সি। এখন থেকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি লিটন মুন্সি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি দায়িত্ব পালন করবে। শুক্রবার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক বিশেষ বর্ধিত সভায় তাকে ভারমুক্ত করেন উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

Model Hospital

কচুয়া সদর দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জানান, ২০২০ সালের ৮ এপ্রিল ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আতাউর রহমান মিন্টু মৃত্যুবরণ করলে পদটি শুন্য হয়। সংগঠনের কার্যক্রম গতানুগতিক রাখতে ১নং সহ-সভাপতি মো. লিটন মুন্সিকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব প্রদান করা হয়। এবং কয়েক দিন পূর্বে আমরা একটি বিশেষ বর্ধিত সভা করে সংগঠনের সাংগঠনিক গতিশিলতার লক্ষে সভাপতি নির্ধারণের সিদ্ধান্ত নেই।

আলোচ্য বিষয়টি উত্থাপিত হলে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. আবু তাহের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি লিটন মুন্সিকে পূর্ণাঙ্গ সভাপতি করার প্রস্তাব দিলে যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. বাবুল মিয়াসহ একাধিক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য তা সমর্থন করলে এবং অন্য কোন প্রস্তাব সমর্থন না আসায় উপস্থিত সকলের সর্বসম্মতিক্রমে কণ্ঠ ভোটে লিটন মুন্সিকে সভাপতি নির্বাচিত করা হয়।

এক প্রতিক্রিয়ায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি লিটন মুন্সি বলেন, আমি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিশ^াসী হয়ে ১৯৯১ সালে প্রথম ছাত্রলীগের দায়িত্ব পালন করি। ৯৩ থেকে ৯৪ পর্যন্ত হযরত শাহ নেয়ামত শাহ উচ্চ বিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি, ৯৫ থেকে ৯৭ পর্যন্ত কচুয়া বঙ্গবন্ধু কলেজ শাখা ছাত্রলীগের উপ-প্রচার সম্পাদক, ৯৮ থেকে ২০০০ পর্যন্ত কচুয়া সদর দক্ষিণ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি, ২০০১ সাল থেকে ০৩ পর্যন্ত কচুয়া উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, ৪ থেকে ৭ পর্যন্ত কচুয়া উপজেলা যুবলীগের সহ-সম্পাদক, ১১ থেকে ১৫ পর্যন্ত কচুয়া সদর দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক ও পরবর্তীতে ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত সভাপতি পদে অধিষ্ঠিত হই।

বতর্মানে দলের নেতৃবৃন্দ আমাকে ভারপ্রাপ্ত থেকে পূর্ণাঙ্গ সভাপতির দায়িত্ব অর্পন করেন। সকলে আমার জন্য দোয়া করবেন আমি যেনো আমার উপর অর্পিত দায়িত্ব ন্যায়পরায়নতার সাথে পালন করতে পারি।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

স্কুলের শ্রেণিকক্ষে ‘আপত্তিকর’ অবস্থায় ছাত্রীসহ প্রধান শিক্ষক আটক

ভারমুক্ত হলেন কচুয়া সদর দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের লিটন মুন্সি

আপডেট সময় : ১০:১১:৩০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২১

মেহেদী হাসান : ভারমুক্ত হলেন কচুয়া সদর দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. লিটন মুন্সি। এখন থেকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি লিটন মুন্সি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি দায়িত্ব পালন করবে। শুক্রবার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক বিশেষ বর্ধিত সভায় তাকে ভারমুক্ত করেন উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

Model Hospital

কচুয়া সদর দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জানান, ২০২০ সালের ৮ এপ্রিল ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আতাউর রহমান মিন্টু মৃত্যুবরণ করলে পদটি শুন্য হয়। সংগঠনের কার্যক্রম গতানুগতিক রাখতে ১নং সহ-সভাপতি মো. লিটন মুন্সিকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব প্রদান করা হয়। এবং কয়েক দিন পূর্বে আমরা একটি বিশেষ বর্ধিত সভা করে সংগঠনের সাংগঠনিক গতিশিলতার লক্ষে সভাপতি নির্ধারণের সিদ্ধান্ত নেই।

আলোচ্য বিষয়টি উত্থাপিত হলে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. আবু তাহের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি লিটন মুন্সিকে পূর্ণাঙ্গ সভাপতি করার প্রস্তাব দিলে যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. বাবুল মিয়াসহ একাধিক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য তা সমর্থন করলে এবং অন্য কোন প্রস্তাব সমর্থন না আসায় উপস্থিত সকলের সর্বসম্মতিক্রমে কণ্ঠ ভোটে লিটন মুন্সিকে সভাপতি নির্বাচিত করা হয়।

এক প্রতিক্রিয়ায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি লিটন মুন্সি বলেন, আমি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিশ^াসী হয়ে ১৯৯১ সালে প্রথম ছাত্রলীগের দায়িত্ব পালন করি। ৯৩ থেকে ৯৪ পর্যন্ত হযরত শাহ নেয়ামত শাহ উচ্চ বিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি, ৯৫ থেকে ৯৭ পর্যন্ত কচুয়া বঙ্গবন্ধু কলেজ শাখা ছাত্রলীগের উপ-প্রচার সম্পাদক, ৯৮ থেকে ২০০০ পর্যন্ত কচুয়া সদর দক্ষিণ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি, ২০০১ সাল থেকে ০৩ পর্যন্ত কচুয়া উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, ৪ থেকে ৭ পর্যন্ত কচুয়া উপজেলা যুবলীগের সহ-সম্পাদক, ১১ থেকে ১৫ পর্যন্ত কচুয়া সদর দক্ষিণ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক ও পরবর্তীতে ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত সভাপতি পদে অধিষ্ঠিত হই।

বতর্মানে দলের নেতৃবৃন্দ আমাকে ভারপ্রাপ্ত থেকে পূর্ণাঙ্গ সভাপতির দায়িত্ব অর্পন করেন। সকলে আমার জন্য দোয়া করবেন আমি যেনো আমার উপর অর্পিত দায়িত্ব ন্যায়পরায়নতার সাথে পালন করতে পারি।