ঢাকা ০৬:১৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শাহরাস্তিতে নিখোঁজের পর সাংবাদিকপুত্রের লাশ উদ্ধার

নোমান হোসেন আখন্দ : চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার সূচীপাড়া উত্তর ইউনিয়নের শোরসাক পূর্ব পাড়ায় শনিবার (২০ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ডোবা থেকে সূচীপাড়া ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেনীর ছাত্র রিমন হোসেন জনি’র (১৮) অর্ধ গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে উপজেলার ইত্তেফাক সংবাদদাতা জসিম উদ্দিনের পুত্র।

Model Hospital

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঘটনার দিন বিকেলে ওই গ্রামের ইসমাইল মিয়াজি বাড়ির ডোবায় শ্রমিকরা কাজ করতে গেলে সেখানে একটি অর্ধ গলিত মৃতদেহ ভাসতে দেখে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

এদিকে মৃতদেহটি ওই গ্রামের বাসিন্দা দৈনিক ইত্তেফাকের শাহরাস্তি উপজেলা সংবাদদাতা মোঃ জসিম উদ্দিনের পুত্র মো. রিমন হোসেন জনি’র (১৮) বলে নিশ্চিত করেছেন নিহতের ছোট বোন রিসনাত জাহান ঝুমুর (১৩)। নিহতের পকেটে থাকা ম্যানিব্যাগে তার মায়ের ছবি দেখে মৃতদেহটি রিমনের বলে তারা শনাক্ত করেছে।

নিহতের পিতা শাহরাস্তি উপজেলা ইত্তেফাক সংবাদদাতা জসিম উদ্দিন জানান, গত ২ নভেম্বর হতে রিমন নিখোঁজ রয়েছে। সম্ভাব্য সব জায়গায় খোঁজ নিয়ে রিমনের সন্ধান না পেয়ে গত ১৮ নভেম্বর তিনি শাহরাস্তি থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছেন। পরনে থাকা জিন্স প্যান্ট দেখে তিনি মৃতদেহটি তার পুত্রের বলে নিশ্চিত হয়েছেন।

এ বিষয়ে গত ১৮ নভেম্বর শাহরাস্তি মডেল থানায় একটি নিখোঁজ ডায়েরী করেন সাংবাদিক জসিম উদ্দিন । সাংবাদিক জসীম উদ্দিন জানান, গত ২ নভেম্বর নিখোজের পর থেকে আত্বীয় স্বজন ও বন্ধুবান্ধবের বাড়ীতে খোঁজাখুজি করা হয়েছে। আমার কোন শক্রু নেই।

শাহরাস্তি থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আবদুল মান্নান জানান, ‘বাড়ির পাশের ডোবা থেকে রিমনের অর্ধ গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের প্যান্ট ও মানিব্যাগ দেখে তার পিতা ও পরিবারের লোকজন লাশটি রিমনের বলে নিশ্চিত করেছে।মৃতদেহ অর্ধ গলিত হওয়ায় মৃত্যুর ব্যপারে নিশ্চিত ভাবে কিছু বলা যাচ্ছে না। লাশ ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হবে।’

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

শহীদ মিনারে শিশু-কিশোরা, শহীদদের ফুলেল শ্রদ্ধায় হৃদয়ে জাগরন সৃষ্টি

শাহরাস্তিতে নিখোঁজের পর সাংবাদিকপুত্রের লাশ উদ্ধার

আপডেট সময় : ০৩:১১:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ নভেম্বর ২০২১

নোমান হোসেন আখন্দ : চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার সূচীপাড়া উত্তর ইউনিয়নের শোরসাক পূর্ব পাড়ায় শনিবার (২০ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ডোবা থেকে সূচীপাড়া ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেনীর ছাত্র রিমন হোসেন জনি’র (১৮) অর্ধ গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে উপজেলার ইত্তেফাক সংবাদদাতা জসিম উদ্দিনের পুত্র।

Model Hospital

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঘটনার দিন বিকেলে ওই গ্রামের ইসমাইল মিয়াজি বাড়ির ডোবায় শ্রমিকরা কাজ করতে গেলে সেখানে একটি অর্ধ গলিত মৃতদেহ ভাসতে দেখে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

এদিকে মৃতদেহটি ওই গ্রামের বাসিন্দা দৈনিক ইত্তেফাকের শাহরাস্তি উপজেলা সংবাদদাতা মোঃ জসিম উদ্দিনের পুত্র মো. রিমন হোসেন জনি’র (১৮) বলে নিশ্চিত করেছেন নিহতের ছোট বোন রিসনাত জাহান ঝুমুর (১৩)। নিহতের পকেটে থাকা ম্যানিব্যাগে তার মায়ের ছবি দেখে মৃতদেহটি রিমনের বলে তারা শনাক্ত করেছে।

নিহতের পিতা শাহরাস্তি উপজেলা ইত্তেফাক সংবাদদাতা জসিম উদ্দিন জানান, গত ২ নভেম্বর হতে রিমন নিখোঁজ রয়েছে। সম্ভাব্য সব জায়গায় খোঁজ নিয়ে রিমনের সন্ধান না পেয়ে গত ১৮ নভেম্বর তিনি শাহরাস্তি থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছেন। পরনে থাকা জিন্স প্যান্ট দেখে তিনি মৃতদেহটি তার পুত্রের বলে নিশ্চিত হয়েছেন।

এ বিষয়ে গত ১৮ নভেম্বর শাহরাস্তি মডেল থানায় একটি নিখোঁজ ডায়েরী করেন সাংবাদিক জসিম উদ্দিন । সাংবাদিক জসীম উদ্দিন জানান, গত ২ নভেম্বর নিখোজের পর থেকে আত্বীয় স্বজন ও বন্ধুবান্ধবের বাড়ীতে খোঁজাখুজি করা হয়েছে। আমার কোন শক্রু নেই।

শাহরাস্তি থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আবদুল মান্নান জানান, ‘বাড়ির পাশের ডোবা থেকে রিমনের অর্ধ গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের প্যান্ট ও মানিব্যাগ দেখে তার পিতা ও পরিবারের লোকজন লাশটি রিমনের বলে নিশ্চিত করেছে।মৃতদেহ অর্ধ গলিত হওয়ায় মৃত্যুর ব্যপারে নিশ্চিত ভাবে কিছু বলা যাচ্ছে না। লাশ ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হবে।’