ঢাকা ০৪:২৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
এ প্রণোদনায় প্রান্তিক পর্যায়ের চাষীদের ভাগ্য বদলে খাদ্য স্বয়ংসম্পূর্ণ  হবে : মেজর রফিকুল ইসলাম

শাহরাস্তিতে বিনামূল্যে ১৬ শ’ ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে সার ও বীজ বিতরণ

শাহরাস্তিতে চলতি অর্থবছরে প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় খরিপ মৌসুমে আউশ ফসলের আবাদ ও উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে ১ হাজার ৬শ’ ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে সার ও বীজ বিতরণ করা হয়।
কৃষিই সমৃদ্ধি এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে, মঙ্গলবার সকালে শাহরাস্তি উপজেলা প্রশাসন ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে পরিষদ মিলন আয়তনে এ প্রণোদনা বিতরণ কার্যক্রম সম্পন্ন হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো:  ইয়াসির আরাফাতের  সভাপ্রধানে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি টেলিকনফারেন্সে বক্তব্য রেখে এ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, মুক্তিযুদ্ধের কিংবদন্তি ১ নং সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি, নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় এবং পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়  সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এমপি।
তিনি বক্তব্য বলেন, আজ আপনারা যে প্রাণোদনা পেয়েছেন,সেটি সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্ব এবং কৃষিকে আগ্রাধিকার দেওয়া কারণে। যার ফলে কৃষি নির্ভর এই দেশটিতে বর্তমানে প্রান্তিক পর্যায়ে আধুনিক চাষাবাদ পদ্ধতি ও প্রযুক্তি নির্ভর চাষাবাদের কলাকৌশল প্রয়োগ হচ্ছে। এতে বৃদ্ধি পেয়েছে চাষাবাদ। ফলে কৃষকদের মাঝে দেওয়া এই  প্রণোদনা তাদের ভাগ্য বদলে দেশকে খাদ্য স্বয়ংসম্পূর্ণ করবে।
ওই সময় তিনি এই জনপদে বহমান ডাকাতিয়ার নাব্যতা আরো বাড়িয়ে এর জলাধারকে কাজে লাগিয়ে ফসলি জমিনের টপসওয়েল বৃদ্ধিকরে ফসল উৎপাদনের উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। পরিশেষে আগত সুবিধাভোগী প্রান্তিক কৃষক ও সংশ্লিষ্ট আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য শেষ করেন।
এ সময় কৃষিবিদ উপজেলা কৃষি অফিসার আয়েশা আক্তারের স্বাগত বক্তব্যে আরো উপস্থিত ছিলেন পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল লতিফ, উপজেলা আলীগের সাধারণ সম্পাদক জেড এম আনোয়ার, অত্র অফিসের উপজেলা উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ অফিসার কৃষ্ণ চন্দ্র দাস, উপ সহকারী কৃষি অফিসার বলরাম সাহা, ইসহাক খন্দকার সহ সকল উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দফতরে কর্মকর্তা-কর্মচারী, মুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, গণমাধ্যম কর্মী, সুশীল সমাজের ব্যক্তিবর্গ সুবিধাভোগী প্রান্তিক পর্যায়ে কৃষক উপস্থিত ছিলেন।
সংশ্লিষ্টরা আরো জানায়, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, শাহরাস্তি, চাঁদপুর কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন কৃষি বান্ধব সরকার দেশের কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধি এবং কৃষকের অবস্থার উন্নতির লক্ষে এই কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে।
এবার শাহরাস্তিতে চলতি অর্থবছরে প্রণোদনা কর্মসূচি হিসেবে ১ হাজার ৬শ’ ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের ১হাজার ৬শ’ বিঘা জমিনের বিপরীতে এ সার ও বীজ বিতরণ করা হয়েছে।
ওই কার্যক্রমে সম্পৃক্ত কৃষকদেরকে উচ্চ ফলনশীল মানঘোষিত উফসি আউশ ধানের বীজ ৫ কেজি করে ৮ মে: টন।
১০ কেজি করে এমওপি ১৬ মে: টন, ১০ কেজি করে ডিএপি ১৬ মে: টন সার বিতরণ করা হয়।
ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

গরু জবাই করার সময় হার্ট অ্যাটাকে মৃ’ত্যু

এ প্রণোদনায় প্রান্তিক পর্যায়ের চাষীদের ভাগ্য বদলে খাদ্য স্বয়ংসম্পূর্ণ  হবে : মেজর রফিকুল ইসলাম

শাহরাস্তিতে বিনামূল্যে ১৬ শ’ ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে সার ও বীজ বিতরণ

আপডেট সময় : ০৯:৪৯:৩৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪
শাহরাস্তিতে চলতি অর্থবছরে প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় খরিপ মৌসুমে আউশ ফসলের আবাদ ও উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে ১ হাজার ৬শ’ ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে সার ও বীজ বিতরণ করা হয়।
কৃষিই সমৃদ্ধি এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে, মঙ্গলবার সকালে শাহরাস্তি উপজেলা প্রশাসন ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে পরিষদ মিলন আয়তনে এ প্রণোদনা বিতরণ কার্যক্রম সম্পন্ন হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো:  ইয়াসির আরাফাতের  সভাপ্রধানে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি টেলিকনফারেন্সে বক্তব্য রেখে এ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, মুক্তিযুদ্ধের কিংবদন্তি ১ নং সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি, নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় এবং পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়  সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এমপি।
তিনি বক্তব্য বলেন, আজ আপনারা যে প্রাণোদনা পেয়েছেন,সেটি সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্ব এবং কৃষিকে আগ্রাধিকার দেওয়া কারণে। যার ফলে কৃষি নির্ভর এই দেশটিতে বর্তমানে প্রান্তিক পর্যায়ে আধুনিক চাষাবাদ পদ্ধতি ও প্রযুক্তি নির্ভর চাষাবাদের কলাকৌশল প্রয়োগ হচ্ছে। এতে বৃদ্ধি পেয়েছে চাষাবাদ। ফলে কৃষকদের মাঝে দেওয়া এই  প্রণোদনা তাদের ভাগ্য বদলে দেশকে খাদ্য স্বয়ংসম্পূর্ণ করবে।
ওই সময় তিনি এই জনপদে বহমান ডাকাতিয়ার নাব্যতা আরো বাড়িয়ে এর জলাধারকে কাজে লাগিয়ে ফসলি জমিনের টপসওয়েল বৃদ্ধিকরে ফসল উৎপাদনের উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। পরিশেষে আগত সুবিধাভোগী প্রান্তিক কৃষক ও সংশ্লিষ্ট আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য শেষ করেন।
এ সময় কৃষিবিদ উপজেলা কৃষি অফিসার আয়েশা আক্তারের স্বাগত বক্তব্যে আরো উপস্থিত ছিলেন পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল লতিফ, উপজেলা আলীগের সাধারণ সম্পাদক জেড এম আনোয়ার, অত্র অফিসের উপজেলা উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ অফিসার কৃষ্ণ চন্দ্র দাস, উপ সহকারী কৃষি অফিসার বলরাম সাহা, ইসহাক খন্দকার সহ সকল উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দফতরে কর্মকর্তা-কর্মচারী, মুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, গণমাধ্যম কর্মী, সুশীল সমাজের ব্যক্তিবর্গ সুবিধাভোগী প্রান্তিক পর্যায়ে কৃষক উপস্থিত ছিলেন।
সংশ্লিষ্টরা আরো জানায়, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, শাহরাস্তি, চাঁদপুর কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন কৃষি বান্ধব সরকার দেশের কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধি এবং কৃষকের অবস্থার উন্নতির লক্ষে এই কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে।
এবার শাহরাস্তিতে চলতি অর্থবছরে প্রণোদনা কর্মসূচি হিসেবে ১ হাজার ৬শ’ ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের ১হাজার ৬শ’ বিঘা জমিনের বিপরীতে এ সার ও বীজ বিতরণ করা হয়েছে।
ওই কার্যক্রমে সম্পৃক্ত কৃষকদেরকে উচ্চ ফলনশীল মানঘোষিত উফসি আউশ ধানের বীজ ৫ কেজি করে ৮ মে: টন।
১০ কেজি করে এমওপি ১৬ মে: টন, ১০ কেজি করে ডিএপি ১৬ মে: টন সার বিতরণ করা হয়।